বন্ধ্যাত্ব

প্রত্যেক দম্পতিরই আরাধ্য বিষয় হচ্ছে একটি সন্তান। বিয়ের পর কমবেশি সব দম্পতিই চান তাদের কাঙ্ক্ষিত সময়ের মধ্যে একটি ফুটফুটে সন্তানের মুখ দেখতে। কারো কারো এই আশা দুরাশায় রূপান্তরিত হয় যখন যথাসাধ্য চেষ্টা করার পরও তারা একটি সন্তানের মুখ দেখতে ব্যর্থ হন। একমাত্র ভুক্তভোগীরাই জানেন এর মর্মবেদনা কতটা। তাই বন্ধ্যাত্ব এক করুণ হতাশার নাম। তবে বন্ধ্যাত্বকে একসময় যেরকম অভিশাপ হিসেবে দেখা হতো সেরকম অবস্থা থেকে আমরা অনেকটাই বেরিয়ে এসেছি। এখন আধুনিক চিকিৎসার বদৌলতে এটা বরং একটি চিকিৎসাযোগ্য, নিরাময়যোগ্য সমস্যা। স্বামী বা স্ত্রী যে কারোর কারণেই সন্তান ধারণে অসুবিধা হোক না কেন, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকলে সেই কারণটি সহজেই চিহ্নিতকরণ করা যায় এবং সেইসাথে সম্ভাব্য সমাধান খুঁজে বের করা ও নিরাময় করা ও সম্ভব হয়।

No Content Available