You are currently viewing শিশুর আদর্শ  উচ্চতা ও ওজন চার্ট
সন্তানের বৃদ্ধি

শিশুর আদর্শ উচ্চতা ও ওজন চার্ট

বয়সের উপর ভিত্তি করে আদর্শ উচ্চতা অনুযায়ী ওজনের একটি চার্ট দেয়া হল যা আপনার সন্তানের বৃদ্ধি পর্যবেক্ষণে সহায়তা করবে।

একজন পিতা-মাতা হিসাবে আমরা সবসময় উদ্বিগ্ন থাকি যে, আমাদের শিশুটি বয়স অনুযায়ী সঠিকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে কিনা তা নিয়ে। শুধুমাত্র উচ্চতা নয় ওজন সম্পর্কেও আমরা মাঝেমধ্যে উদ্বিগ্ন থাকি। তবে, এখানে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল সঠিক যত্ন নেওয়ার পরও আপনার শিশুর বৃদ্ধি যদি তার সমবয়সী অন্যান্য শিশুদের তুলনায় তুলনামূলকভাবে কম হয় তবে মনে হয় আপনার শিশুটি সঠিক পুষ্টিগুন সমৃদ্ধ খাবার কতটুকু পাচ্ছে এ ব্যাপারে আপনার আরেকবার ভাবার সময় এসে গেছে।

আমাদের চারপাশে একাধিক কারণ রয়েছে যা শিশুর বিকাশকে প্রভাবিত করে। প্রতিটি বাচ্চা তাদের নিজস্ব জিন, তারা কেমন খাবার খাবার খাচ্ছে এবং পরিবেশের উপর ভিত্তি করে বেড়ে ওঠে। সুতরাং, সঠিক পুষ্টি পেলে আপনার ছোট্ট শিশুটি সময়মতই বেড়ে উঠবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। আমরা আপনাকে সহায়তা করার জন্য, বয়সের উপর ভিত্তি করে একটি উচ্চতা-ওজনের চার্ট তৈরি করেছি। আমরা নিশ্চিত যে এই চার্টটি শিশুরা বয়সের সাথে সাথে কীভাবে বৃদ্ধি পাবে তা বুঝতে আপনাকে সহায়তা করবে এবং তাদের চিকিৎসকের কাছে নেয়ার বা অন্যান্য পদক্ষেপ নেয়ার ক্ষেত্রে আপনাকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

শিশুর খাদ্যাভ্যাস অনুসারে তাদের ওজন পরিবর্তিত হতে থাকে। তবে স্বাস্থ্যকর খাবার খেলেও, বেশিরভাগ মানুষের উচ্চতা বৃদ্ধি সাধারণত ১৮-২০ বছর বয়সের মধ্যেই বন্ধ হয়ে যায় এবং এর পরে বয়স বাড়ার সাথে সাথে উচ্চতায় বিভিন্ন কারনে ওঠানামা হয়।

এখানে দেয়া চার্টটি আদর্শ উচ্চতা এবং ওজনের একটি আনুমানিক শ্রেণিবদ্ধকরণ। এটি সবসময় নিয়মমাফিক চলবে সেটা নাও হতে পারে।অনেক সময়ই দেখা যায়,শিশু প্রাথমিকভাবে বয়সের হিসাবে বেড়ে উঠতে উঠল না কিন্তু তারপর হঠাৎ করেই কিছুদিন পর সে তার আদর্শ উচ্চতা এবং ওজনে পৌঁছে গেছে। এছাড়াও, আপনার শিশুর উচ্চতা বাড়ার সাথে সাথে তাদের ওজন কমে যেতে পারে। ওজন হ্রাস করার এবং তাদের উচ্চতা বৃদ্ধির সময়টুকুতে কোনওভাবেই উদ্বিগ্ন হবার প্রয়োজন নেই। কিছু সময় পরে, আপনার সন্তানের ওজন তার উচ্চতা অনুযায়ী বেড়ে যাবে। দুশ্চিন্তা না করে তাদের জন্য সেরা পুষ্টিগুন সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ করতে থাকুন এবং নিয়মিত ওজন ও উচ্চতা পরিমাপ করতে ভুলবেন না। আমরা নিশ্চিত আপনার সন্তানটি সর্বোত্তম উপায়ে বড় হবে।

চার্টটি খেয়াল করলে দেখতে পাবেন, মেয়ে এবং ছেলেদের উচ্চতায় কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। সাধারণত, ছেলেরা মেয়েদের চেয়ে উচ্চতায় লম্বা হয়। তাদের শরীরে উপস্থিত বিভিন্ন জিন এবং হরমোনের কারণে সেটা হয়ে থাকে যা তাদের উচ্চতা এবং ওজনকে প্রভাবিত করে।

তবে এগুলো আপনার সন্তানের উচ্চতা এবং ওজন প্রভাবিত করার একমাত্র কারন হিসাবে ভেবে নেওয়া উচিত নয়। কখনও কখনও বাচ্চারা তাদের নিজস্ব গতিতে বেড়ে ওঠে। এমনকি এমন সময় চলে আসতে পারে যখন আপনার মেয়েটি আপনার ছেলের চেয়েও লম্বা হয়ে যেতে পারে। এটি সম্পূর্ণ হরমোনাল ব্যাপার। তাই কোনওভাবেই আপনার কন্যাসন্তানটিকে ছেলেসন্তানটির চেয়ে কম ভাববেন না।

আপনার বাচ্চাটির সর্বোত্তম যত্ন নিন এবং তারা অবশ্যই আপনার অপরিসীম ভালবাসায় তাদের আদর্শ উচ্চতা ও ওজন অনুযায়ী বেড়ে উঠবে এবং একটি শক্তিশালী আগামী প্রজন্ম গঠন করবে।

Arif Billah

স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য, উপাত্ত এবং পরামর্শ নিয়ে আমি সবসময় হাজির আছি আপনার পাশে!

Leave a Reply